মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে ফেনী

অবস্থানঃ ফেনী জেলার উত্তরে কুমিল্লা জেলা ও ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য,দক্ষিণে চট্টগ্রাম জেলা ও বঙ্গোপসাগর,  পূর্বে চট্টগ্রাম জেলা ও ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য এবং পশ্চিমে নোয়াখালী জেলা।

আয়তনঃ ৯২৮.৩৪ বর্গ কিঃ মিঃ

প্রশাসনিক কাঠামোঃ

* উপজেলাঃ ৬ টি, ফেনী সদর, ছাগলনাইয়া, সোনাগাজী, ফূলগাজী, পরশুরাম, দাগনভূঞা

* থানাঃ ৬ টি,  ফেনী সদর, ছাগলনাইয়া, সোনাগাজী, ফূলগাজী, পরশুরাম, দাগনভূঞা

পৌরসভাঃ ৫ টি

* ইউনিয়নঃ ৪৩ টি

* গ্রামঃ ৫৬৪ টি

* মৌজাঃ ৫৪০ টি

* ইউনিয়ন ভূমি অফিসঃ ২৭ টি, আদায় শিবির ক্যাম্প ০২ টি

* হাট বাজারঃ ১২৩ টি

 জনসংখ্যাঃ (২০১১ সালের আদমশুমারী অনুয়ায়ী)

* মোট জনসংখাঃ ১৪,৯৬,১৩৮ জন

* পুরষঃ ৭,২২,৬২৬ জন

* নারীঃ ৭,৭৩,৫১২ জন

* জনসংখ্যার ঘনত্ব ১৪৫১ জন(প্রতি বর্গ কিঃ মিঃ)

শিক্ষা  সংক্রান্ত তথ্যঃ শিক্ষা ব্যবস্থায় ফেনী জেলার অগ্রগতি উলেখযোগ্য। ফেনীতে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা  ব্যবস্থা চালু হয় ১৮৮৪ সালে ফেনী আদর্শ পাইলট প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাধ্যমে। এর দুই বছরের মাথায় ১৮৮৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ফেনী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়। নারী শিক্ষায় ফেনী বাংলাদেশের অনেক জেলা থেকে অগ্রগামী। শুধুমাত্র নারীদের শিক্ষার জন্য ১৯১০ সালে ফেনীতে প্রতিষ্ঠিত হয় সরলাদেবী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় যা বর্তমানে ফেনী সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় নামে প্রতিষ্ঠিত। মাদ্রাসা শিক্ষায় ১৯২৩ সালে ফেনীতে প্রতিষ্ঠিত হয় ফেনী আলিয়া মাদ্রাসা। বর্তমানে ফেনীতে-

 

* সাক্ষরতার হারঃ ৫৯.৬%

* ডিগ্রী কলেজঃ ১১ টি

* উচ্চ মাধ্যমিক কলেজঃ ১০ টি

* গার্লস ক্যাডেট কলেজঃ ১ টি

* পলিটেকনিকঃ ১টি

* কম্পিউটার ইনস্টিটিউটঃ ১টি

* মাধ্যমিক বিদ্যালয়ঃ ১৫৫ টি

* নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ঃ ১৯ টি

* মাদ্রাসাঃ ৯৭ টি

* টিচার্স ট্রেনিং কলেজঃ ১ টি

* পি টি আইঃ ১ টি

* প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ৫২৮ টি

* মসজিদ : ২২৪৫ টি

* মন্দির ১৩৮ টি

* গীর্জা ১টি ।

স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য:  

*২৫০ শয্যা বিশিষ্ট আধুনিক হাসপাতাল : ১ টি

* ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সঃ ২ টি (ছাগলনাইয়া, পরশুরাম)

* ৩১ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সঃ ৩ টি (সোনাগাজী, ফুলগাজী, দাগনভূঞা)

* হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতালঃ ১টি

* ডায়াবেটিস হাসপাতালঃ ১ টি

* বক্ষ  ব্যাধি ক্লিনিকঃ ১ টি

* ট্রমা সেন্টারঃ ১ টি

* মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রঃ ১ টি

* সেবা (নার্সিং ট্রেনিং ইনস্টিটিউট): ১টি

* ইউনিয়ন উপ স্বাস্থ্য কেন্দ্রঃ ১৯ টি

* ইউনিয়ন পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রঃ ৩৩ টি

* কমিউনিটি ক্লিনিক : প্রস্তাবিতঃ ১৫৩ টি

                        স্থান নির্বাচিতঃ ১৪৮ টি

                        সপূর্ণ নির্মিতঃ ১১৪ টি

                        বর্তমানে চালুকৃতঃ ১১৪ টি

যাতায়াত ব্যবস্থাঃ

*জাতীয় মহাসডকঃ  ৩১ কিঃ মিঃ (ঢাকা- চট্টগ্রাম)

জাতীয় মহাসডকঃ  ২০ কিঃ মিঃ (ফেনী-নোয়াখালী)

*রেল পথঃ ২৬ কিঃ মিঃ

* পাকা রাস্তা ১,০৪৪.৮৫ কিঃ মিঃ

* আধা পাকা রাস্তা: ৮৭.৯৬ কিঃ মিঃ

* কাঁচা রাস্তা: ২,১৩২.৯৬ কিঃ মিঃ

প্রধান নদীঃ

ফেনী নদী, মুহুরী নদী, কহুয়া নদী, সিলোনিয়া নদী, কালিদাস পাহালিয়া নদী।

ভূমি সংক্রান্ত তথ্যঃ

* মোট আবাদী জমিঃ ৭৫,৯২২ হেঃ

* নীট আবাদী জমিঃ ৭৪,৭২০ হেঃ

* চাষাবাদযোগ্য জমিঃ ৭৪,৭২০ হেঃ

* জলাভূমিঃ ৬,০১০ হেঃ

* চাষের অযোগ্যঃ ১২০২(সাময়িক)

* এক ফসলীঃ ৯,১৩৬ হেঃ

* দোফসলীঃ ৫৪,২৪৯ হেঃ

* তিন ফসলীঃ ১১৩৩৫ হেঃ

* সেচের আওতায়ঃ ৩৫,০৮২ হেঃ

* মোট বনভূমিঃ২,১৭৯.২২ হেঃ

শিল্প  সংক্রান্ত তথ্যঃ

* শিল্প নগরীঃ ২ টি

* ভারী শিল্পের সংখ্যাঃ ৫ টি

* দুলা মিয়া কটন মিল্স

* দোস্ত টেক্সটাইল মিলস

* কোয়ালিটি জুট ইয়ার্ন মিলস লিঃ

* আবুল খায়ের ম্যাচ ফ্যাক্টরী লিঃ

* মাঝারী শিল্পঃ ৭ টি

*  ক্ষুদ্র শিল্পঃ ৮২৬ টি

* কুটির শিল্প : ৩৪১৯ টি

খনিজ সম্পদঃ

* ফেনী গ্যাস ফিল্ড।

   সদর উপজেলার ধলিয়া ইউনিয়নে অবস্থিত।

* বি জি বি সেক্টর হেড কোয়ার্টারঃ ১টি (জয়লস্কর, দাগনভুইয়া)।

* কারাগার : ১ টি

* মিলনায়তনঃ ১ টিঃ

বিখ্যাত ব্যক্তিত্বঃ দেশের শিক্ষা ও সংস্কৃতিতে ফেনী জেলার উলেখ যোগ্য অবদান রয়েছে। ফেনী জেলার বরেণ্য  ব্যক্তিদের মধ্যে উলেখযোগ্য কয়েকজনঃ কবি নবীন চন্দ্র সেন, কবি হাবিবুলাহ বাহার চৌধুরী, ভাষা সৈনিক আব্দুস সালাম, ভাষা সৈনিক গাজীউল হক, শহীদ বুদ্বিজীবি ও সাহিত্যিক শহীদুলাহ কায়সার, শহীদ বুদ্বিজীবি, সাহিত্যিক ও চলচ্চিত্রকার জহির রায়হান, শহীদ বুদ্বিজীবি ও সাংবাদিক সে
লনা পারভীন, কবি সামছুন্নাহার মাহমুদ, স্যার এ,এফ রহমান, নাট্যকার ও গবেষক সেলিম আল দীন প্রমুখ।

ঐতিহাসিক স্থানঃ

* হযরত শাহ সৈয়দ আমির উদ্দীন রঃ (পাগলা বাবার) মাজার ।

* শতবর্ষী চাঁদগাজী ভুঞাঁ মসজিদ, ছাগলনাইয়া।

* প্রাচীর সুড়ঙ্গ মঠ, ফুলগাজী।

* বিলোনিয়া সীমান্ত পোস্ট, পরশুরাম।

* বিলোনিয়া পুরাতন রেল স্টেশন।

দর্শনীয় স্থানঃ

* মুহুরী সেচ প্রকল্প এলাকাঃ ফেনী জেলার সোনাগাজী উপজেলায় দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম সেচ প্রকল্প এলাকা। ১৯৭৭-৭৮ অর্থ বছরে শুর হয়ে  ১৯৮৫- ৮৬ অর্থ বছরে  প্রকল্পের নির্মাণ  কাজ শেষ হয়।

* মুহুরী সেচ প্রকল্প   সংলগ্ন দক্ষিণাংশে  ও অদুরের কেওড়া  বাগান সহ চর এলাকা।

*ফেনী সদর উপজেলার ধর্মপুর মৌজার  পাহাড়ী  এলাকা।

*ফেনী সদর বিজয় সিংহ দীঘি  এলাকা।

* ফুলগাজী উপজেলার দক্ষিণ সোনাপুর ও  মান্দারপুর মৌজার  পাহাড়ী এলাকা।

* দাগনভূইয়া এলাকার  ভাষা শহীদ সালাম নগর এলাকা।

নির্বাচনী এলাকাঃ ৩ টি

* ফেনী- ১(২৬৫): পরশুরাম, ফুলগাজী, ছাগলনাইয়া উপজেলা।

* ফেনী- ২(২৬৬): ফেনী সদর উপজেলা।

* ফেনী- ৩(২৬৭): সোনাগাজী ও দাগনভুইয়া উপজেলা।

ফেনী জেলার সমস্যাঃ

* ঘূর্ণিঝড়

* জলোচ্ছাস/আকস্মিক বন্যা

* পাহাড়ী ঢল

* নদী ভাঙ্গন

* জলাবদ্ধতা

* মাছের প্রজাতি হ্রাস

* বন উজাড়

* সীমান্ত বিরোধ

সম্ভাবনাঃ

* ইপিজেড

* বায়ু বিদ্যুৎ

* বিদ্যুৎ উৎপাদন প্লান্ট

* প্রাকৃতিক গ্যাস

* শিল্প সম্ভাবনা

* সমুদ্র বন্দর

 

 


View Larger Map